বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০১:৩৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
এই দেশ কারও বাবার সম্পত্তি নয় : ইশরাক অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালো সামাজিক স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন ইয়থ ডেভলপমেন্ট ফোরাম কুষ্টিয়ায় কতৃপক্ষ ঘুমিয়ে, জিকে ক্যানালের জায়গা অবৈধভাবে দখল করে নির্মান হচ্ছে দোকান ‘স্বচ্ছ ও ভালো নিয়ত’ নিয়ে এসেছেন কুষ্টিয়ার নতুন এসপি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাওয়ে পুলিশের বাধা, গোটা দেশ অবরোধের হুমকি কুমারখালীর বাঁশগ্রাম কামিল মাদরাসায় কামিল ও ফাযিল পরীক্ষায় অভাবনীয় সফলতা অর্জন কুষ্টিয়ায় দিনে দুপুরে পরের জমির গাছ কেটে নিলো প্রভাবশালীরা ‘আবিষ্কারের নেশায় তিনবার সরকারি চাকরি ছেড়েছি’ কুষ্টিয়ায় হাইওয়ে থানা পুলিশের সফল অভিযান: বিদেশী পিস্তল, গুলি সহ আটক -১ বাঁশ হাতে পুলিশের দিকে তেড়ে যাওয়ার ছবি ভাইরাল
মাদক সেবনকালে কুষ্টিয়া জেলা আ:লীগের সভাপতির ছেলে ও ভাতিজাসহ গ্রেপ্তার ৮

মাদক সেবনকালে কুষ্টিয়া জেলা আ:লীগের সভাপতির ছেলে ও ভাতিজাসহ গ্রেপ্তার ৮

রাজবাড়ী প্রতিনিধি: রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলা শহরের কৃষি ফার্মে বসে মাদক সেবনকালে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও খোকশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সদর উদ্দিন খানের ছেলে নাজমুস সালেহীন খান (২২) এবং সদর উদ্দিন খানের ভাই রহিম উদ্দিন খানের ছেলে সিয়াম মাহমুদ (২১)সহ ৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নাজমুস ও সিয়ামের বাড়ী কুষ্টিয়া জেলার খোকশা উপজেলার সমসপুর গ্রামে। গ্রেপ্তারকৃতদের আজ শনিবার সকালে রাজবাড়ীর আদালতে পাঠানো হয়েছে। পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন জানান, গত শুক্রবার সন্ধ্যা রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলার পাংশা উপজেলা শহরের কৃষি ফার্মে অভিযান পরিচালনা করেন থানা পুলিশের সদস্যরা। সে সময় নাজমুস সালেহীন খান ও সিয়াম মাহমুদসহ কুষ্টিয়া জেলার খোকশা কলেজপাড়া গ্রামের দীলিপ বিশ্বাসের ছেলে রুপক বিশ্বাস জয় (২০), পাংশা পৌরসভার সত্যজিৎপুর গ্রামের মোবারক খানের ছেলে লিটন খান (২৭) ও নারায়নপুর গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে শাওয়ানুর রহমান (২৭), পাংশা কলেজ পাড়ার গোলাম শাহরিয়ারের ছেলে হাসিবউদ্দিন (২৫) ও আব্দাস উদ্দিনের ছেলে সাইদুর রহমান (২৬) এবং কালুখালী উপজেলার আমবাড়ীয়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে সজিবুল ইসলাম (২৫) কে গ্রেপ্তার করা হয়। সে সময় গ্রেপ্তারকৃতরা মাদক সেবন করছিলো। পরে শনিবার সকালে তাদেরকে রাজবাড়ীর আদালতে পাঠানো হয়। উল্লেখ্য, সদ্য যোগদানকৃত রাজবাড়ীর পুলিশ এমএম শাকিলুজ্জামান গত বৃহস্পতিবার তার সম্মেলন কক্ষে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় বলেছিলেন, “মাদক বড় একটি সমস্যা। তবে মাদকের ব্যাপারে কোন ছাড় নেই। যাকে যে অবস্থায় পাওয়া যাবে তার বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।” পুলিশ সুপারের এই ঘোষনার পর পাংশার এই অভিযান জনমনে স্বস্থির সৃষ্টি করছে। এধারা অব্যাহত থাকবে বলেও সাধারণ মানুষ মনে করছেন।

এই সংবাদটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © swadeshbarta24.com
Design & Developed BY Anamul Haque Rasel