বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০৩:০২ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
এই দেশ কারও বাবার সম্পত্তি নয় : ইশরাক অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালো সামাজিক স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন ইয়থ ডেভলপমেন্ট ফোরাম কুষ্টিয়ায় কতৃপক্ষ ঘুমিয়ে, জিকে ক্যানালের জায়গা অবৈধভাবে দখল করে নির্মান হচ্ছে দোকান ‘স্বচ্ছ ও ভালো নিয়ত’ নিয়ে এসেছেন কুষ্টিয়ার নতুন এসপি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাওয়ে পুলিশের বাধা, গোটা দেশ অবরোধের হুমকি কুমারখালীর বাঁশগ্রাম কামিল মাদরাসায় কামিল ও ফাযিল পরীক্ষায় অভাবনীয় সফলতা অর্জন কুষ্টিয়ায় দিনে দুপুরে পরের জমির গাছ কেটে নিলো প্রভাবশালীরা ‘আবিষ্কারের নেশায় তিনবার সরকারি চাকরি ছেড়েছি’ কুষ্টিয়ায় হাইওয়ে থানা পুলিশের সফল অভিযান: বিদেশী পিস্তল, গুলি সহ আটক -১ বাঁশ হাতে পুলিশের দিকে তেড়ে যাওয়ার ছবি ভাইরাল
কুষ্টিয়ার ৪টি পৌরসভা নির্বাচন জমে উঠেছে শেষ মহুর্তে

কুষ্টিয়ার ৪টি পৌরসভা নির্বাচন জমে উঠেছে শেষ মহুর্তে

ডেস্ক রির্পোট: আসছে ১৬ জানুয়ারি দ্বিতীয় ধাপে পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে কুষ্টিয়ার মিরপুর ভেড়ামারা কুমারখালী এবং কুষ্টিয়া পৌরসভার নির্বাচনী প্রচারণা বেশ জমে উঠেছে। সময় যত এগিয়ে আসছে নির্বাচনী মাঠ তেমনি গরম হয়ে উঠছে। নির্বাচন নিয়ে প্রার্থীরা যেমন দিচ্ছে একের পর এক প্রতিশ্রুতি। সেই সাথে কোন কোন পৌর এলাকায় ঘটছে হামলা এবং মামলার মতো ঘটনা। তবে নির্বাচন কমিশন বলছে এই নির্বাচনকে অবাধ সুষ্ঠু এবং প্রভাবমুক্ত করার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তারা।
মেয়র কাউনিন্সলরদের বিগত দিনের কর্মকান্ড নিয়ে চলছে পক্ষে বিপক্ষের অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের। প্রায় সব কটি পৌর এলাকাতেই ছেয়ে গেছে পোষ্টারে পোষ্টারে। ভোটারদের মধ্যে চলছে প্রার্থীদের নিয়ে চলেছে চুলচেরা বিশ্লেষন। মাইকিং চলছে দিনভর। সভা-সমাবেশ। মটরসাইকেল বহর ও লিফলেট বিতররন। এসবের মধ্যেও ভোটাররা চাইছে নিরাপদ ভাবে এবং নিজের ভোট নিজের দেওয়ার পরিবেশ।
কুষ্টিয়া পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা -১৪৬৪২৩ জন। পুরুষ ভোটার সংখ্যা- ৭০৭৮৯ জন। মহিলা ভোটার সংখ্যা ৭৫৬৩৪ জন। কুমারখালী পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা -১৮৯৯০ জন। পুরুষ ভোটার সংখ্যা- ৯৩১০ জন। মহিলা ভোটার সংখ্যা- ৯৬৮০ জন। মিরপুর পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা -১৭৬৬৯৩ জন। পুরুষ ভোটার সংখ্যা- ৮৭২৩ জন। মহিলা ভোটার সংখ্যা- ৮৯৪৬ জন। ভেড়ামারা পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা -১৯৪০৫ জন। পুরুষ ভোটার সংখ্যা- ৯২৭১ জন। মহিলা ভোটার সংখ্যা- ১০১৩৪ জন।
এদিকে কুষ্টিয়া,কুমারখালী,মিরপুর এবং ভেড়ামারা পৌরসভায় নির্বাচনী উত্তাপ ছড়াচ্ছে। মিরপুরে দলীয় বিভাজনের কারনে বিএনপি তেমন একটা সুবিধা করতে না পারলেও আওয়ামীলী প্রার্থী এনামুল হক মালিথাকে সমানে টক্কর দিয়ে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন স্বতন্ত্রপ্রার্থী আরিফুর রহমান। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থীর অভিযোগ তাকে নির্বাচনি মাঠে বাধা দেওয়া হচ্ছে। ছিড়েফেলা হচ্ছে পোষ্টার এবং তার কর্মীদের পেটানো সহ দেওয়া হচ্ছে মিথ্যা মামলা। কোন প্রকার পোষ্টার, প্রচার-প্রচারণা করলেই হামলা করে ভেঙ্গে দেয়া হচ্ছে স্বতন্ত্র প্রার্থীর অফিস। অভিযোগ দিয়েও কোন লাভ হয়নি। অভিযোগ এই স্বতন্ত্র প্রার্থীর। নির্বাচনী পোষ্টার লাগাতে দেয়া হচ্ছে না। ভ্যানে প্রচার চালানোয় বাধা দেয়া হয়েছে। শেষ পর্যন্ত মটরসাইকেলে প্রচার চালালেও তা ভেঙ্গে দেয়া হয়। তাই গোপনে প্রচার-প্রচারণা করছেন দাবী বিএনপির এই প্রার্থী।
তবে এসব অভিযোগকে মিথ্যা বলে নিজের উন্নয়নের কারনেই আবারও জয়ী হওয়ার কথা জানালেন আওয়ামীলীগ প্রার্থী।
অপরদিকে ভেড়ামারায় আওয়ামীলীগের প্রার্থীর বিরুদ্ধে ভোট যুদ্ধে অংশ নেওয়া জোটের আরেক শরিক জাসদের প্রার্থী আনারুল কবির টুটুল আছে শক্ত অবস্থানে। জাসদ সভাপতি ইনুর নির্বাচনী এলাকা হওয়ায় আছে বাড়তি সুবিধা। ইতি মধ্যে দুই এই দলের প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে হয়েছে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ। সেই সাথে চলছে নেতাদের বাকযুদ্ধ। এই সুযোগে বিএনপি’র ঘাটি বলে পরিচিত ভেড়ামারায় বিএনপি’র প্রার্থী শামীম রেজা ব্যাপক প্রচারনা চালাচ্ছেন। তবে নিজেদের স্থানীয় দলীয় নেতারা বলছেন তাদের জয় নিশ্চিত, সুষ্ট নির্বাচন হলে নিজেদের দলীয় প্রার্থীরা জয় লাভ করবেন বলে জানান ।

এই সংবাদটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © swadeshbarta24.com
Design & Developed BY Anamul Haque Rasel