সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৪:০১ পূর্বাহ্ন

কুমারখালীতে পৃথক স্থানে অগ্নিকান্ডে ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি, আহত ২

কুমারখালীতে পৃথক স্থানে অগ্নিকান্ডে ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি, আহত ২

স্বদেশ বার্তা : আগুন লাগার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যাওয়ার পথে ভাঙা রাস্তায় আটকে গেল ফায়ার সার্ভিসের পানিবাহী গাড়ি।এর ফলে আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায় চারটি পরিবারের ৬ টি বসতঘর, ৪ টি করে রান্না ও গোয়াল ঘর,দুইটি ছাগল,নগদ টাকা,স্বর্ণালংকার ও আসবাবপত্র সমূহ।বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়ে প্রায় আট লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি বুধবার (৩ মার্চ) বিকেলে ৫ টা ৪০ মিনিটের সময় কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার যদুবয়রা ইউনিয়নের জোতমোড়া গ্রামের পশ্চিমপাড়ার নুজাদারের ছেলে সেকেন্দার আলী ও সুরত আলী, মৃত সরো মোল্লার ছেলে মনজেদ এবং জদের ছেলে লিটনের বাড়িতে ঘটে।

সরেজমিন গিয়ে পুলিশ ও এলাকাকাসী সুত্রে জানা গেছে, বিকেল ৫ টা ৪০ মিনিটের দিকে হঠাৎ সুরতের ঘর থেকে বিকট শব্দ শোনা যায়।এরপর দেখা যায় বিশাল আগুনের শিখা।ধীরেধীরে আগুন পাশের ঘর গুলোতে ছড়িয়ে পড়লে প্রতিবেশীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে এবং ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়।এরপর ফায়ার সার্ভিসের লোকজন না আসলেও প্রায় ৩০ থেকে ৪০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও পুড়ে যায় সুরত, সেকেন্দার, মনজেদ ও লিটনের বসতঘর, রান্নাঘর, গোলায়াল ঘর,নগদ টাকা,ছাগলসহ যাবতীয় আসবাবপত্র।এরা সবাই পেশায় দিনমজুর।

এবিষয়ে নুজদারের ছেলে সুরত বলেন,চৌচালা ও দোচালা দুইটি বসতঘর, গোলায়াল, রান্নাঘর, নগদ ৩০ হাজার টাকা,আসবাবপত্রসহ প্রায় দুইলাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।সেকেন্দর আলী বলেন, আমার আর কিছুই নাই,কই যাব,কোনে থাকব।সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।মনজেদ বলেন, জনবেচে খায়।আগুনে আমার গরু বেচা ৫০ হাজার ও লোন করা ২০ হাজার,সোনার গোহনা,আংটি,ঘরবাড়ি আসবাবপত্র সহ প্রায় আড়াই লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এর আগে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে একই ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের কানুই কুমার(৭০) বাড়িতে গ্যাস লাইট বিস্ফোরণে এক ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।এতে লোন করা নগদ ২৫ হাজার টাকা,চৌচালা টিনের বসতঘর,রান্নাঘরসহ সকল আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়।অগ্নিকান্ডে ৩০ হাজার টাকা মুল্যের একটি বাছুর গরু পুড়ে মারা যায়।প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে দুই লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।এসময় আগুনে নিভাতে গিয়ে কানুই কুমার ও তার স্ত্রী মায়া রানী (৬০)আগুনে দদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়ে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন।এছাড়াও বুধবার (৩ মার্চ) দুপুরে উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের ছেউরিয়া এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের খড়ের গাঁদিতে আগুন লেগে ৫০ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

এবিষয়ে কুমারখালী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মকর্তা আব্দুল হালিম বলেন, পৃথক তিনটি স্থানে আগুন লেগে প্রায় ১০ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।দুঃখ প্রকাশ করে তিনি আরো বলেন, বিকেলে যদুবয়রা ইউনিয়নের জোতমোড়া গ্রামে অগ্নিপাতের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছানোর পথিমধ্যে চাপড়া এলাকার জিকে ক্যানাল সংলগ্ন ভাঙা রাস্তার ফায়ার সার্ভিসের পানিবাহী গাড়ি আটকে যায়।প্রায় ২৫থেকে ৩৫ মিনিটের চেষ্টায় ভাঙা থেকে গাড়ি তুলতে পারলেও আগুন ঠেকাতে পারিনি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীবুল ইসলাম খান মুঠোফোনে বলেন, অগ্নিকান্ডের খবর পেয়েছি।লিখিত আবেদন করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই সংবাদটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © swadeshbarta24.com
Design & Developed BY Anamul Haque Rasel